ইতিহাস কি বলে, কে সন্ত্রাসী- মুসলিম নাকি অমুসলিমরা ?

মুসলমানরা আরবে তাদের মূল কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করেছিলো মক্কা বিজয়ের মাধ্যমে। ইতিহাস বলে এই যুদ্ধে জয়লাভের পর মুসলমানরা কাউকে হত্যা করেনি। চাইলে সে সময় মুসলমানরা অনেককেই হত্যা করতে পারতো। কিন্তু মুসলমানদের শেষ নবী সবাইকে ক্ষমা করে দেন।

ক্রুসেড যুদ্ধের পর একই ঘটনা দৃশ্যমান হয়। মুসলমানরা যখন বায়তুল মুকাদ্দাস দখল করে, তখন তারা কারো উপর নির্যাতন করেনি। ইতিহাস খ্যাত যোদ্ধা সালাউদ্দিন আইয়ুবী সবাইকে ক্ষমা করে দিয়েছিলেন সে সময়। ইতিহাসের প্রত্যেক ক্ষেত্রেই একই রকম প্রকাশ পায়, প্রমাণিত হয় মুসলমানরা সর্বক্ষেত্রেই ছিলো দয়ালু।

Continue reading

Advertisements

অধিকার, হিন্দু বনাম মুসলিম!

ঢাকাস্থ আর্মি স্টেডিয়ামে শত কোটি টাকা খরচ করে ৫ দিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত হচ্ছে ভারতীয় হিন্দুয়ানী শাস্ত্রী সংগীত অনুষ্ঠান। এ অনুষ্ঠানে আগত অতিথীদের জন্য বন্ধ করা হচ্ছে বনানী মহাসড়কটি । অথচ বনানী মহাড়ক হচ্ছে প্রায় ২২/২২টি জেলার প্রবেশ মুখ । উল্লেখ্য ‘ঢাকায় কোরবানী ঈদের সময় যানজট হতে পারে এমন অজুহাতে হাটের সংখ্যা হ্রাস করা হয়েছিলো এবং সমস্ত হাটগুলো ঢাকা থেকে বের করে দেওয়া হয়েছিলো, এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলো বনানী রেলওয়ের খালি স্থানের গরুর হাটটিও । Continue reading

চেতনাবাজদের ‍মানদণ্ড

অনেককে দেখি ৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ হয়েছে এই চেতনা বেচে এখনও খায়। কিন্তু গতকাল বাংলাদেশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রায় স্পষ্ট করে বললো- আইএস’র নাম দিয়ে বাংলাদেশ দখলের ষড়যন্ত্র চলছে, বাংলাদেশকে সিরিয়া-আফগানিস্তান-ইরাকের মত ধ্বংসস্তুপে পরিণত করা হবে। অর্থাৎ বাংলাদেশকে পরাধীন করার ডাইরেক্ট ষড়যন্ত্র চলছে, এত স্পষ্ট কথা বলার পরও দেখলাম, খুব একটা জনসচেতনা নেই। আর মুক্তিযুদ্ধের ফেরিওয়ালারা তো মুখে কুলুপ এটেছে।
তারমানে কি দাড়ালো,
চেতনা বিক্রিকারীরা পাকিস্তানের আয়ত্বে থাকলে অখুশি ছিলো, Continue reading

আইএস দ্বারা মানুষের গলা কাটার মূল রহস্য

অনেক সময় ‘আইএস’ নাম দিয়ে বিভিন্ন ভিডিও ছড়ানো হয়। সেখানে দেখানো হয়- আইএস মানুষের গলা কাটছে। এ ভিডিওগুলো ইহুদী নিয়ন্ত্রিত মিডিয়ায় গণহারে প্রচার করা হয় এবং এমন পরিবেশ সৃষ্টি করা হয় যেনো সব মুসলমানই এ ঘটনার জন্য দায়ি। এরপর তারা সবাই একযোগে ইসলাম ধর্মকে সন্ত্রাসী ধর্ম বলে গালি দেয় এবং বিভিন্ন মুসলিম দেশ দখলের ছক আকে।
এখানে একটি ভিডিও দেখতে পাবেন, Continue reading

অমুসলিমদের চেহারা পরিবর্তন!

(১) ব্রাজিলের এক ব্যক্তি প্ল্যাস্টিক সার্জারি করে তার চেহারা পোষা কুকুরের মত করেছে। (http://goo.gl/u4Vbhu)

(২) মেক্সিকোর মারিয়া জোস ক্রিস্টিনা নামক এক নারী প্ল্যা্স্টিক সার্জারি করে নিজ চেহারা পরিবর্তন করে রক্ত চোষা ভ্যাম্পায়ারের মত করেছে। (http://goo.gl/Jjn950)

(৩) Erik Sprague নামক এক মার্কিনী চেহারা সার্জারি করে গুইসাপের মত করেছে। (https://goo.gl/6Os8Q9) Continue reading

আমেরিকায় মাকড়সা আতঙ্ক

মার্কিনীরা গত কয়েকদিন যাবত বেশ ভয় পাচ্ছিলো, ভাবছিলো হয়ত তাদের দেশে মুসলিম শরনার্থীরা ঢুকে পড়বে, আর তাদের দৃষ্টি মুসলিম মানেই খারাপ, আতঙ্ক আর ভয়। তাই মুসলিম বিরোধী আন্দোলন চলছিলো তুঙ্গে।

কিন্তু না, মুসলিম শরনার্থী নয়, ভিন্ন এক আতঙ্ক গ্রাস করলো মার্কিনীদের। যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসি অঙ্গরাজ্যে মেমসিফ শহরে কোথা থেকে যেন প্রবেশ করলো ঝাঁকে ঝাঁকে মাকড়সা, একটি দুটি নয়, মিলিয়ন মিলিয়ন। ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট, মাঠ সর্বত্র শুধু মাকড়সা আর মাকড়সা।

Continue reading

বাংলাদেশের বগুড়ায় শিয়া মসজিদে হামলা ও পশ্চিমাদের ধান্দাবাজি

বাংলাদেশের বগুড়ায় এক শিয়া মসজিদে হামলা হয়েছে। এটা নিয়ে অনেক ধান্ধাবাজ ব্লগারকে দেখলাম- বাংলাদেশ সন্ত্রাসী রাষ্ট্র হয়ে গেছে বলে মুখে ফেনা তুলছে। দাবি করছে- বাংলাদেশে নাকি আইএস এসেছে, বাংলাদেশে আমেরিকার হামলা করা উচিত বলেও তারা দাবি করেছে। (শিয়া মসজিদে হামলার খবর- http://goo.gl/tFtzG2)

যাই হোক, এমন উদ্ভট দাবি যারা করছে তাদের কিছু তথ্য জেনে রাখা প্রয়োজন। খোদ আমেরিকাতেই কিন্তু চার্চগুলো খ্রিস্টানদের থেকে নিরাপদ নয়। এই তো গত ১৭ই জুন, ২০১৫ তারিখে দেশটির সাউথ ক্যারোলিনা অঙ্গরাজ্যে কালোদের একটি ২০০ বছরের প্রাচীন চার্চে হামলা চালায় এক শেতাঙ্গ সন্ত্রাসী। ঐ সময় চার্চে সবাই প্রার্থনারত ছিলো। এমন অবস্থায় এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে থাকে ডিল্যান রুফ নামক ২১ বছর বয়সী এক খ্রিস্টান শেতাঙ্গ সন্ত্রাসী। গুলিতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় চার্চের যাজকসহ মোট ৯ জন। বলাবাহুল্য এ হামলা যে বিচ্ছিন্ন ঘটনা তা নয়, পরবর্তীতে প্রকাশ পেয়েছে ঠাণ্ডা মাথায় শেতাঙ্গ সন্ত্রাসী রুফ এ হামলা চালায় এবং যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে গৃহযুদ্ধ বাধানোই তার উদ্দেশ্য। (http://goo.gl/WSaOz4,http://goo.gl/DQPCz8http://goo.gl/9OIzJ8,

Continue reading

বাংলাদেশে আইএস ও পশ্চিমাদের অপপ্রচার

আপনারা নিশ্চয়ই জানেন,
‘আইএস’ নামক অজুহাত পশ্চিমাদের আক্রমণ করার এখন সবচেয়ে সহজ কৌশল।
গতকালকেই খবর এসেছে সিরিয়াতে আ্‌ইএস দমনে হামলা করবে জার্মানি। একই সাথে ব্রিটেনও বলছে তারাও আইএস দমনে নামবে।(খবরের সূত্র:http://goo.gl/j2qQaA,http://goo.gl/9t723g)

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যে আইএস দমনের অজুহাতে আমেরিকা, রাশিয়া ও ফ্রা্ন্স সিরিয়াতে হামলা চালাচ্ছে। বিষয়টি আমি আগেই বলেছিলাম- কথিত প্যারিস হামলার অজুহাতে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হবে এবং সেটা সব অমুসলিমরা মিলে মুসলমানদের বিরুদ্ধে। দ্য ইকোনোমিস্ট টাইমস এর প্রচ্ছদের ছবিতে সেটাই কিন্তু বর্ণনা করা ছিলো। (সূত্র: http://goo.gl/vRNBgz)
এখন দেখা যাচ্ছে- সব কথিত অমুসলিম সুপারপাউয়ার আমেরিকা, রাশিয়া, ফ্রান্স, ব্রিটেন ও জার্মানি্ ইতিমধ্যে একযোগে আইএস নাম করে মুসলিম দেশে আক্রমণ শুরু করেছে। আর সেই ধারাবাহিকতায় আক্রমণের অজুহাত খুজতেই বাংলাদেশে আইএস প্রমাণের জোর প্রচেষ্টা চলছে।

Continue reading

আইএস আতঙ্ক নাকি অামেরিকা আতঙ্ক ?

আমেরিকা সারা বিশ্বজুড়ে মিথ্যা ‘আইএস’কে হুমকি বলে প্রচার করছে এবং সে অজুহাতে মুসলিমদেশগুলোতে আগ্রাসন চালাচ্ছে। অথচ তাদের দেশের সমীক্ষাগুলো বলছে- সাদা আমেরিকানরাই তাদের দেশের জন্য সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসী হুমকি।

মন্তব্য: আমার মনে হয়, আমেরিকার এই সাদা চামড়ার সন্ত্রাসী দমনে পুরো বিশ্বের উচিত আমেরিকার উপরে হামলা করা, ড্রোন দিয়ে পুরো আমেরিকা গুড়িয়ে দেওয়া। Continue reading

সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের জন্য দায়ি মুসলিমরা নাকি অমুসলিমরা !

প্রচার করা হচ্ছে, মুসলিম মাত্রই নাকি সন্ত্রাসী। অথচ ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) দেশগুলোর পুলিশ বাহিনীর সমন্বয়ক সংগঠন ইউরোপোলের রিপোর্ট (২০০৬-০৯) অনুসারে ইউরোপের মোট সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের ০.৩২ % এর জন্য মুসলমানরা দায়ি, বাকি ৯৯.৬৮% জন্য বাকি ধর্মগুলো দায়ি।

মন্তব্য: আমার মনে হয়, মুসলমানদের উচিত ইউরোপের অমুসলিম সন্ত্রাসীদের দমনের জন্য সেখানে ড্রোন হামলা চালানো এবং বিমান দিয়ে বোম্বিং করে পুরো ইউরোপকে গুড়িয়ে দেওয়া।

Continue reading