বাংলাদেশে ইসকন কর্তৃক মূর্তি ভাংচুর এবং মুসলমানদের বিরুদ্ধে ধড়পাকড়

নাটোরে দূর্গা মূর্তি ভাংচুর নিয়ে হিন্দুরা খুব আন্দোলন করছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে একদল মুখোশ পরিহিত লোক নাকি এ ভাংচুর চালায়।
আমার কথা হচ্ছে, যে ভাংচুর করতে আসবে, সে মুখোশ পড়ে আসবে কেন ? আর যে মুখোশ পড়ে আসবে সে অবশ্যই লোকাল ভাংচুরকারী নয়, তার উদ্দেশ্য ভিন্ন কিছু।
মূর্তি ভাংচুরের ঘটনাটি ঘটেছে নাটোরের গুরুদাসপুরে। আর গুরুদাসপুরে কিন্তু ইসকনের কার্যক্রম আছে। আর এই আন্দোলনগুলো করছেও কিন্তু ইসকন কর্তৃক লেলিয়ে দেওয়া নিচু বর্ণের হিন্দুরা, সকল হিন্দুরা নয়।
আমি কয়েক পোস্ট আগে, বাংলাদেশের সাবেক সেনা সদস্যদের লেখা ‘বাংলাদেশে র’, নামক বইয়ের রেফারেন্স দিয়ে দেখিয়েছিলাম- ইসকন কোন হিন্দু সংগঠন নয়, এটা একটা ইহুদী সংগঠন। মূলতঃ তারাই নিজেদের মন্দিরে হামলা চালিয়ে বিশেষ কোন স্বার্থ হাসিল করতে চাচ্ছে।

আরেকটি বিষয় যোগ করছি। আমার জানা মতে, বাংলাদেশ নাটোর জেলা কাদিয়ানী সম্প্রদায়ের একটি শক্তিশালী ঘাটি। কাদিয়ানী কোম্পানি ‘প্রাণ’ এর অনেক বড় বড় কারখানা আছে সেখানে। ‘কাদয়ানী’ও যেহেতু ইহুদী সংগঠন, তাই কাদিয়ানী-ইসকন এই ঘটনার পেছনে একত্র হয়ে কাজ করতে পারে।
কি উদ্দেশ্যে মুখোশ পরে এ হামলা হতে পারে-
১) বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করা। বিদেশী হত্যাকাণ্ড, হোসনী দালানে শিয়াদের উপর হামলার মত এটিও একটি কার্যক্রম।
২) মূলতঃ ইসকন একটি এনজিও টাইপ সংগঠন। এরা পশ্চিমাদেশগুলো থেকে ফান্ড পেলে কাজ করে। কিন্তু ফাণ্ড পাওয়ার জন্য আগে কিছু কাজ করে দেখাতে হয় আগে। এমনও হতে পারে, মন্দিরে নিজেরাই হামলা করে, এরপর আন্দোলন তৈরী করে এবং সেই আন্দোলনের ভিডিও ধারণ করে পশ্চিমাদেশগুলোতে পাঠায়। ফলশ্রুতিতে ফান্ড পায়।
৩) আন্দোলনের মাধ্যমে ফাণ্ড পাওয়া ও নাটোরে অবস্থা সুসংহত করা। হয়ত অদূর ভবিষ্যতে নাটোরে বড় কোন ইসকন মন্দির তৈরীর টার্গেট আছে।
৪) বর্তমানে মন্দিরগুলো ভাঙ্গার জন্য ইসকনের সাথে ভারতেরও সম্মিলিত হাত থাকতে পারে। কারণ সম্প্রতি গোপালগঞ্জে একটি মন্দির ভাংচুরের সময় এক হিন্দু ভারতীয় নাগরিক হাতে নাতে ধরা পড়েছে। (http://goo.gl/f2sutU)
তবে দুঃখের বিষয় কি জানেন,
এই মন্দির ভাঙ্গার অজুহাত দিয়ে নাটোরে মুসলমানদের উপর প্রশাসন খুবেই ধরপাকড় করছে। অনেক নিরীহ মুসলমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে, অনেক গ্রাম পুরুষশূণ্য হয়ে পড়েছে। আমার কথা হচ্ছে, হিন্দুরা অধিকার নেবে নিক, কিন্তু নিরীহ মুসলমানদের ফাদে ফেলে অধিকার আদায় করার দরকার কেন ? নিজের স্বার্থ আদায়ে অপরকে ফাদে ফেলা কখনই ভালো ফল বয়ে আনবে না।
সবাইকে ধন্যবাদ।
Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s