লেজকাটা শিয়াল ও তসলিমা নাসরিন

তসলিমা নাসরিনের কোন স্ট্যাটাস ভালো না লাগলেও, এ স্ট্যাটাসটা আমার খুব ভালো লেগেছে। তসলিমা নাসরিন সমাজের পরিবর্তন চায়, যে সমাজে ‘চরিত্র খারাপের সংজ্ঞা’টা হবে ভিন্ন উপায়ে। নারী-পুরুষ যত খুশি যার-তার সাথে সেক্স করবে, কোন ধরাবাধা থাকবে না। তসলিমার ভাষায়, সেক্সের মত সুস্বাদু জিনিস দিয়ে চরিত্র খারাপের মানদণ্ড করা ঠিক নয়। যেহেতু মানুষ সমাজের নিয়ম তৈরী করে, আবার নিজেরাই নিয়ম ভাঙ্গে, তাই তসলিমা এমন এক সমাজ চায়, যেখানে অবাধ সেক্স চরিত্র খারাপের মানদণ্ড রূপে গণ্য হবে না, গণ্য হবে চুরি, ডাকাতি, খুনের মত বিষয়গুলো। Continue reading

Advertisements

কথিত বর্ষবরণে নারীদের উপর কথিত যৌন নিপীড়নের ঘটনার নিয়ে ছাত্র ইউনিয়নের মৌলবাদী কর্মীদের ডিএমপি কার্যালয় ঘেড়াও

নিউটনের থার্ড ল’, “প্রত্যেক ক্রিয়ার একটা সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া আছে”
প্রবাদ আছে, “ইটটি মারলে পাটকেলটি থেকে হয়”.

কথিত বর্ষবরণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে নারীদের উপর কথিত যৌন নিপীড়নের ঘটনার প্রতিবাদে ডিএমপি কার্যালয় ঘেড়াও করেছিলো ছাত্র ইউনিয়নের একদল মৌলবাদী কর্মী। সেই ঘেরাওকারীদের গেস্ট রুমে ডেকে আদর-অাপ্যায়ন না করে, উল্টো হাতে যা ছিলো তাই দিয়ে সেই মৌলবাদীদের মোকাবেলা করেছে পুলিশ। Continue reading